বৃহস্পতিবার, ১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ভোর ৫:০৩

শিরোনাম :
সদর উপজেলা নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী জসিম উদ্দিনের মনোনয়ন বৈধ ঘোষনা বরিশালের দুই উপজেলায় বৈধতা পেলেন ২৫ প্রার্থী ঝালকাঠিতে বেপরোয়া ট্রাক কেড়ে নিল ১৪ প্রাণ বরিশাল সদরে ভাইস চেয়ারম্যান পদে হাদিস মীরের মনোনয়ন দাখিল বরিশালে তীব্র গরমে নাভিশ্বাস জনজীবন,বিপাকে নিম্ন আয়ের মানুষ! বরিশাল সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে জসিম উদ্দিনের মনোনয়নপত্র দাখিল বরিশাল সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে এসএম জাকির হোসেনের মনোনয়নপত্র দাখিল দুই উৎসবের ছুটি শেষে বরিশাল থেকে কর্মস্থলে ফিরছে মানুষ ঈদ আনন্দ থাকতেই বরিশালে বইছে পহেলা বৈশাখের আনন্দ সাংবাদিক মামুন অর রশিদের মায়ের মৃত্যুতে এস এম জাকির’র শোক
অতিরিক্ত ফি প্রত্যাহারের দাবিতে বিএম কলেজে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

অতিরিক্ত ফি প্রত্যাহারের দাবিতে বিএম কলেজে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

dynamic-sidebar

খবর বরিশাল ডেস্কঃ বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজে স্নাতক (সম্মান) চতুর্থ বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষার ফরম পূরণের অর্থের সঙ্গে তৃতীয় বর্ষের সেশন ফি পুনরায় দাবি করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার দুপুরে ফরম পূরণে এই অতিরিক্ত অর্থ প্রত্যাহারের দাবিতে কলেজ ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীরা।দুপুর ১২টার দিকে কলেজ ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ শুরু হয়।

 

 

বিক্ষোভ নিয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে তাঁরা কলেজের প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নেন এবং সেখানে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে তাঁদের দাবি তুলে ধরেন। এ সময় তাঁরা চতুর্থ বর্ষের ফরম পূরণে তৃতীয় বর্ষের পরিশোধ করা সেশন ফি পুনরায় দাবি করায় তা প্রত্যাহার দাবি করে বিভিন্ন স্লোগান দেন।আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা জানান, স্নাতক (সম্মান) চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষার ফরম পূরণে কলেজ কর্তৃপক্ষ এবার ৬ হাজার ৬৬৫ টাকা ফি নির্ধারণ করেছে। এর মধ্যে তৃতীয় বর্ষের সেশন ফি বাবদ নির্ধারণ করা হয়েছে ২ জাহার ২৫০ টাকা। কিন্তু সেশন ফির এই অর্থ তাঁরা আগেই পরিশোধ করেছেন। কিন্তু চতুর্থ বর্ষের ফরম পূরণে পুনরায় তৃতীয় বর্ষের সেশন ফি ধার্য করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

 

 

শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘করোনার কারণে এমনিতেই আমাদের দুই বছর পড়শোনার ক্ষতি হয়েছে। এখন আমাদের স্নাতকোত্তরে পড়াশোনা করার কথা। কিন্তু করোনার কারণে সেশনজটে আটকে আমাদের শিক্ষাজীবন থেকে দুই বছর নষ্ট হয়েছে। এতে আমাদের জীবন যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তেমনি আমাদের পরিবারও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কিন্তু কলেজ প্রশাসন সে সব বিবেচনায় না নিয়ে অমানবিকভাবে শিক্ষার্থীদের ওপর অতিরিক্ত অর্থের বোঝা চাপিয়ে দিয়েছে। এটা অন্যায্য, অমানবিক।’কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী হাফিজুর রহমান বলেন, ‘আমরা ন্যায়সংগত দাবি নিয়ে আন্দোলনে নেমেছি। আমরা অযৌক্তিক কোনো দাবি করছি না।

 

 

আমাদের দাবি মানতে হবে।’আরেক শিক্ষার্থী গণিত বিভাগের রাকিবুল ইসলাম বলেন, ‘যে অর্থ আমরা পরিশোধ করেছি, সেই অর্থ পুনরায় কীভাবে দাবি করা হচ্ছে। এমনিতেই আমাদের শিক্ষাজীবন আজ সেশনজটের কারণে বিপর্যস্ত। সেখানে এখন পরিশোধ করা সেশন ফি আবার ধার্য করে শিক্ষার্থীদের হয়রানি করা হচ্ছে। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে নতুন করে তৃতীয় বর্ষের সেশন ফি প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি।’শিক্ষার্থীরা আরও বলেন, ‘আমরা প্রতিবছর কলেজের সেশন ফি পরিশোধ করে আসছি। কিন্তু স্নাতক চতুর্থ বর্ষের ফরম পুরণে পুনরায় তৃতীয় বর্ষের সেশন ফি ধার্য করা হয়েছে।

 

 

এটা প্রত্যাহার না করা হলে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।’বিক্ষোভ শেষে শিক্ষার্থীরা কলেজ অধ্যক্ষ মো. গোলাম কিবরিয়ার কক্ষে যান এবং দাবি তুলে ধরে তা বাস্তবায়নের আহ্বান জানান। কলেজ অধ্যক্ষ এ সময় তাঁদের দাবির যৌক্তিকতা বিবেচনা করে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা বেলা পৌনে একটার দিকে বিক্ষোভ স্থগিত করেন।এ বিষয়ে অধ্যক্ষ মো. গোলাম কিবরিয়া বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা দাবি করেছেন, তাঁরা তৃতীয বর্ষের সেশন ফি পরিশোধ করেছেন। যদি সেটা করে থাকেন, তাহলে বিষয়টি বিবেচনা করা হবে। আমি খোঁজ নিয়ে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেব।’

আমাদের ফেসবুক পাতা

© All rights reserved © 2018 DailykhoborBarisal24.com

Desing & Developed BY EngineerBD.Net